কলাপাড়ায় ইটভটায় হামলা : আহত-৪ কলাপাড়ায় ইটভটায় হামলা : আহত-৪ - For update barisal news visit barisallive24.com
বরিশাল, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ৮ ঘন্টা আগে
শিরোনাম

বরিশাল লাইভ ডেস্ক


কলাপাড়ায় ইটভটায় হামলা : আহত-৪

মে ২৪, ২০১৮ ১০:২৮ অপরাহ্ণ

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলায় রাতের আধারে ইটভাটায় হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় যুবলীগ নেতা, তার ভা্ই ও সহযোগীদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভাটার মালিকসহ ৪ জন আহত হওয়ার পাশাপাশি প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকা লুট ও ভাটার অফিস কার্যালয় ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে। আহতরা হলো উপজেলার নীলগঞ্জের নবিপুর এলাকার মৃত অহিদুর রহমানের ছেলে ও ভাটা মালিক শফিকুর রহমান সুমন (৩০), একই এলাকার বাসিন্দা কাঞ্জন মাঝির ছেলে আলাউদ্দিন নাজির (৪০), সমীর (৩৫), ও উপজেলার লালুয়ার গোলবুনিয়া এলাকার মৃত রফেজ সর্দারের ছেলে মোঃ আনোয়ার সর্দার (৪০)। যাদের মধ্যে রাতেই শফিকুর রহমান সুমন (৩০) ও মোঃ আনোয়ার সর্দার (৪০) কে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত শফিকুর রহমান সুমন জানান, উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের নবীপুর গ্রামের নীচকাটা এলাকায় বন্ধন ব্রিকস নামে একটি ইটভাটা রয়েছে। যা তারা ৪ জন ব্যবসায়ীক পার্টনার মিলে পরিচালনা করেন। তিনি বলেন, পৌর যুবলীগ নেতা জাকির হোসেন, তার ছোট ভাই খালিদ, চাচাতো ভাই মোশারেফ তাদের সহযোগী ফয়সাল, নাহিদ, মোজাম্মেল, নজরুল, সোহেলসহ ৩০/৪০ জন বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ৭ টার দিকে ইটভাটায় আকস্মিক হামলা চালায়। এসময় তারা আমাদের পিটিয়ে আহত করার পাশাপাশি ইটভাটার অফিসের ক্যাশে থাকা ৩ লাখ ২০ হাজার টাকা লুটে নেয় এবং অফিসকক্ষ ভাংচুর করে আরো লাখ টাকার ক্ষতি সাধন করে। রাতেই স্খানীয়রা আমিসহ ৪ জন আহতকে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে রাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি হই ২ জন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ঘটনাস্থল ইতিমধ্যে কলাপাড়া থানার এসআই আলমগীর পরিদর্শন করেছেন।

পাঠকের মতামত:

[wpdevart_facebook_comment facebook_app_id="322584541559673" curent_url="" order_type="social" title_text="" title_text_color="#000000" title_text_font_size="22" title_text_font_famely="monospace" title_text_position="left" width="100%" bg_color="#d4d4d4" animation_effect="random" count_of_comments="3" ]
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য
Developed by: NEXTZEN-IT