মেয়ে দেখতে এসে মোবাইল-টাকা নিয়ে উধাও পাত্র মেয়ে দেখতে এসে মোবাইল-টাকা নিয়ে উধাও পাত্র - For update barisal news visit barisallive24.com
বরিশাল, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং। সর্বশেষ আপডেট: ৪ ঘন্টা আগে
শিরোনাম

বরিশাল লাইভ ডেস্ক


মেয়ে দেখতে এসে মোবাইল-টাকা নিয়ে উধাও পাত্র

সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮ ১০:৪৯ অপরাহ্ণ

পাত্রী দেখতে এসে শুধু খাবারে মন ভরেনি পাত্রের। যাওয়ার সময় নিয়ে গেছেন নতুন মোবাইল ফোন, টাকাপয়সা। পশ্চিমবঙ্গের চন্দননগরে অভিনব প্রতারণায় হতবাক পাত্রীর মা। তাজ্জব খোদ পাত্রীও। থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীরা।

জি নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কলকাতা থেকে ৩৫ কিলোমিটার উত্তরে চন্দননগর পৌরসভা। সেখানে টালির চাল আর ক্ষয়ে যাওয়া এই ইটের ঘরটাকেই টার্গেট করে পাত্র পক্ষ। তবে এ পাত্র যে সে পাত্র নয়, তা বুঝতে দেরি হয়ে যায় ছাত্রী অনুরাধা সিং ও তার মা নন্দা সিং-এর।

কিছুদিন আগে অচেনা নম্বর থেকে ফোন আসে চন্দননগর ৮ নম্বর ওয়ার্ডের নাড়ুয়ার ২১ বছর বয়সী ওই তরুণীর কাছে। কয়েকদিন কথা বলার পর সরাসরি বিয়ের প্রস্তাব দেয় ওই যুবক। শুধু তাই নয়,  বিশ্বাস আদায়ে পরিবারের সঙ্গে দেখা করার আর্জিও করে সে। ভরসা পেয়ে বাড়িতে নিমন্ত্রণ করে ওই তরুণীর পরিবার।

সুদর্শন, আর্থিক স্বচ্ছলতার ছাপ নিয়ে বুধবার মেয়ের বাড়িতে হাজির হয় পাত্র ও পরিবারের সদস্য।

রঙ চটা ঘরে রঙিন স্বপ্ন দেখেন মা ও মেয়ে। বাড়িতে আর কেউ না থাকার সুযোগে গল্পও জুড়ে দেয় পাত্র ও তার সঙ্গে থাকা নারী। এরপরেই কাহানিতে টুইস্ট।

মেয়ের বাবা রণজিৎ সিং পেশায় ক্যাটারিং ব্যবসায়ী কাজের সূত্রে গুজরাটে গেছেন, ভাইও বাইরে।

বাড়িতে কেউ না থাকায় অতিথিদের আপ্যয়ন করতে মেয়েকেই মিষ্টি আনতে দোকানে পাঠান মা। মিষ্টি খেতে খেতে চলে আলোচনা। মেয়েকে দেখার পর পছন্দ হয়েছে বলে জানায় পাত্র  ও তার খালা। এরপর তারা চলে যায়।   পাত্র চলে যাওয়ার পরই তরুণী দেখেন তার মোবাইলটি উধাও। মোবাইল খুঁজতে খুঁজতে  নজর  যায় আলমারিতে। দেখেন আলমারি খোলা। হাওয়া ব্যাগে রাখা পাঁচ হাজার রুপিও। মা ও মেয়ের ব্যস্ততার সুযোগে পাত্র সেজে আসা ব্যক্তি ও তার  সঙ্গে থাকা নারী প্রথমে মোবাইল ও পরে আলমারি থেকে টাকা নিয়ে পালায়।

মা ও মেয়ের বুঝতে অসুবিধা হয়নি যে তারা প্রতারণার ফাঁদে পড়েছেন। পুলিশে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিনব প্রতারণায় তাজ্জব পাড়া প্রতিবেশীরাও।

এএম/সিপি/ঢাটা

পাঠকের মতামত:

[wpdevart_facebook_comment facebook_app_id="322584541559673" curent_url="" order_type="social" title_text="" title_text_color="#000000" title_text_font_size="22" title_text_font_famely="monospace" title_text_position="left" width="100%" bg_color="#d4d4d4" animation_effect="random" count_of_comments="3" ]
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য
Developed by: NEXTZEN-IT