[english_date], [bangla_day]

১৩ কোটি ডলার ব্যয়ে গোপন পৃথিবী খোঁজা

আপডেট: February 22, 2019

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

‘হাউ টু ট্রেইন ইয়োর ড্রাগন: দ্য হিডেন ওয়ার্ল্ড’ ছবির পোস্টার
দুস্থ ও অসহায় ড্রাগনদের রক্ষার জন্য কাজ করছে হিকাপ। ড্রাগন আর মানুষ বন্ধু হয়ে একে অন্যের সঙ্গে থাকবে, এমনটাই তার প্রত্যাশা। কিন্তু সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। ধীরে ধীরে হিকাপের আবাসস্থলে থাকা কঠিন হয়ে পড়ে। এমন সংকটের সময় হিকাপের মনে পড়ে বাবা স্টয়িকের কথা। বাবা বলেছিল, ড্রাগনদের জন্য একটা গোপন পৃথিবী খুঁজে বের করতে হবে। সেখানে তারা নিজেদের মতো করে জীবনযাপন করবে। শুরু হলো হিকাপের সেই গোপন পৃথিবী খোঁজার অভিযান। তাঁর সঙ্গী টুথলেস। এদিকে সাদা ড্রাগনকে পাঠানো হয়েছে টুথলেসকে ধরার জন্য। কিন্তু টুথলেস সেই সাদা ড্রাগনের প্রেমে পড়ে যায়। সাদা ড্রাগন কী করবে? তাকে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, তার কী হবে! টুথলেসকে ধরে অবশ্যই মনিবের কাছে নিয়ে যেতে হবে তাকে। টুথলেসকে আটক করা হবে? আর হিকাপ কি টুথলেসকে বাঁচাতে পারবে? নাকি নিজেই বন্দী হয়ে যাবে শত্রুদের হাতে?

আমেরিকান কম্পিউটার-অ্যানিমেশন অ্যাকশন ফ্যান্টাসি ছবি ‘হাউ টু ট্রেইন ইয়োর ড্রাগন: দ্য হিডেন ওয়ার্ল্ড’-এর গল্প। রোমাঞ্চকর গল্প। ছবিতে হিকাপের চরিত্রে কণ্ঠ দিয়েছেন জয় বারুচাল। এ ছাড়া অ্যাস্ট্রিডের চরিত্রে আমেরিকা ফেরেরা, খলনায়ক গ্রিমেল চরিত্রে এফ মুর আব্রাহাম, ভলকা চরিত্রে কেট ব্ল্যানচেট, স্টয়িকের চরিত্রে জেরার বাটলার কণ্ঠ দিয়েছেন। পরিচালনা করেছেন ডিন ডিব্লয়েস। ছবিটি তৈরি করেছে ড্রিমওয়ার্কস অ্যানিমেশন। আজ শুক্রবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। একই দিনে মুক্তি পেয়েছে বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সেও।

ক্রেসিডা কাওয়েলের শিশুতোষ উপন্যাস ‘হাউ টু ট্রেইন ইয়োর ড্রাগন’-এর ওপর ভিত্তি করে এই ছবির চিত্রনাট্য লিখেছেন ডিন ডিব্লয়েস। ছবিটি তৈরিতে খরচ হয়েছে প্রায় ১৩ কোটি ডলার। পরিবেশক প্রতিষ্ঠান ইউনিভার্সাল পিকচার্স সূত্রে জানান গেছে, এরই মধ্যে ‘হাউ টু ট্রেইন ইয়োর ড্রাগন: দ্য হিডেন ওয়ার্ল্ড’ ছবিটি ১৮ কোটি ডলার আয় করেছে।

‘হাউ টু ট্রেইন ইয়োর ড্রাগন’ সিরিজের প্রথম ছবি মুক্তি পায় ২০১০ সালে। ‘হাউ টু ট্রেইন ইয়োর ড্রাগন টু’ মুক্তি পেয়েছে ২০১৪ সালে। প্রথমটির বাজেট সাড়ে ১৬ কোটি ডলার, আয় করেছে প্রায় ৫০ কোটি ডলার আর দ্বিতীয়টির বাজেট সাড়ে ১৪ কোটি ডলার, আয় করেছে ৬২ কোটি ডলার। প্রথম ছবির মুক্তি পরই নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ড্রিমওয়ার্কস অ্যানিমেশন থেকে জানানো হয়, এই সিরিজের তিনটি ছবি হবে। তাই দ্বিতীয়টির পর থেকে শুরু হয় সিরিজের শেষ ছবির জন্য অপেক্ষা।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

আরও পড়ুন